১৫ আগস্টে ঢাকা কলেজে সাত কর্মসূচি

স্বাধীনতার স্থপতি জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৪৭তম শাহাদত বার্ষিকী ও ‘জাতীয় শোক দিবস’-২০২২ উপলক্ষে ঢাকা কলেজে দিনব্যাপী সাত কর্মসূচি পালন করা হবে। 

 

রোববার (১৪ আগস্ট) বিষয়টি জানিয়েছেন ১৫ আগস্ট জাতীয় শোক দিবস-২০২২ উদযাপন কমিটির আহ্বায়ক ও ইংরেজি বিভাগের বিভাগীয় প্রধান অধ্যাপক পুরঞ্জয় বিশ্বাস। তিনি জানান, শিক্ষার্থীদের বঙ্গবন্ধু মুক্তিযুদ্ধ ও স্বাধীন বাংলাদেশের অভ্যুদয়ের ইতিহাস সম্পর্কে জানাতে ইতোমধ্যেই উচ্চ মাধ্যমিক ও স্নাতক- স্নাতকোত্তর শ্রেণির শিক্ষার্থীদের জন্য কবিতা আবৃত্তি, রচনা ও কুইজ প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত হয়েছে। আর ১৫ আগস্ট (সোমবার) জাতীয় শোক দিবসে কলেজে সাতটি কর্মসূচি পর্যায়ক্রমে পালিত হবে।

সেগুলো হলো—

১. সূর্যোদয়ের সাথে সাথে জাতীয় পতাকা অর্ধনমিতকরণ।

২. বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে পুষ্পস্তবক অর্পণ

ক) ঢাকা কলেজ ক্যাম্পাসে সকাল সাড়ে ৭টায়।
খ) ধানমন্ডি ৩২ নম্বরে সকাল ১১টায়।

৩. সকাল সাড়ে ৮টায় বঙ্গবন্ধুর জীবন ও কর্মের ওপর প্রামাণ্যচিত্র প্রদর্শনী।

৪. সকাল ৯টায় শেখ রাসেল দেয়ালিকা প্রদর্শনী।

৫. ১৫ আগস্টে বঙ্গবন্ধু ও তার পরিবারের শাহাদতবরণকারী সকল শহীদদের বিদেহী আত্মার মাগফেরাত কামনা করে দোয়া-মোনাজাত ও প্রার্থনা।

ক) বাদ যোহর ঢাকা কলেজ জামে মসজিদে দোয়া-মোনাজাত।
খ) সন্ধ্যা সাড়ে ৭টায় পশ্চিম ছাত্রাবাসের উপাসনালয়ে প্রার্থনা৷

৬. বিকেল ৩টায় ১৫ আগস্টে বঙ্গমাতাসহ শাহাদত বরণকারী বঙ্গবন্ধুর পরিবারবর্গের সমাধিতে (বনানী কবরস্থান) শ্রদ্ধা নিবেদন।

৭.কলেজের শহীদ আ.ন.ম নজিব উদ্দিন খান খুররম অডিটোরিয়াম আলোচনা সভা ও আলোকচিত্র প্রদর্শনী। (তারিখ ও সময় পরবর্তীতে নির্ধারণ করা হবে)।

ঢাকা কলেজ অধ্যক্ষ অধ্যাপক মোহাম্মদ ইউসুফ বলেন, জাতীয় শোক দিবসে দিনব্যাপী এসব কার্যক্রমে সকল শিক্ষক সাধারণ শিক্ষার্থী, কর্মকর্তা, কর্মচারীরা স্বতঃস্ফূর্তভাবে অংশগ্রহণ করবেন। আমরা চাই সাধারণ শিক্ষার্থীরা মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় বিশ্বাসী হয়ে গড়ে উঠুক। বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান অটল নেতৃত্বের গুণাবলী সম্পর্কে জানুক। আশা করি, এসব কর্মসূচি তাদের জ্ঞানের পরিধি বাড়িয়ে বাংলাদেশ, মুক্তিযুদ্ধ, স্বাধীনতা ও বঙ্গবন্ধু সম্পর্কে জানাতেও সহায়তা করবে।

 

পুনরুত্থান/সালেম/সাকিব/এসআর

Comments: