এবার ড্রোন ক্যামেরা ফোন নিয়ে আসছে ভিভো

এবার স্মার্ট ফোনের মধ্য থেকে বের হয়ে আসবে উড়ন্ত ক্যামেরা। সম্প্রতি স্মার্টফোন নির্মাতা ভিভো এ ধরনের ফোন তৈরির ঘোষণা দিয়েছে। সব কিছু ঠিক থাকলে ভিভোর ফ্লাইং ড্রোন ক্যামেরা ফোনটি চলতি বছরই বাজারে আসছে, এমনই গুঞ্জন শোনা যাচ্ছে।

 

২০০এমপি সেন্সর যুক্ত ও ফাইভ জি প্রযুক্তির ফোনটি নিয়ে এরমধ্যেই জল্পনা কল্পনা শুরু হয়েছে। প্রযুক্তি বিশেষজ্ঞরা বলছে, এ ধরনের ফোন বাজারে এলে স্মার্টফোনের চিরাচরিত রূপ বদলে যাবে।

 

যদিও প্রতি বছর ভিভো তাদের ফ্ল্যাগশিপ স্মার্টফোনগুলো বাজেটের মধ্যে রাখার চেষ্টা করে। তবে ফ্লাইং ড্রোন ক্যামেরা ফোনটি হবে প্রতিষ্ঠানটির অন্যতম দামি ফোনগুলোর একটি। ভিভো ফ্লাইং ড্রোন ক্যামেরায় যেসব ফিচার থাকছে ধারণা করা হচ্ছে ফোনটি ওয়ান ক্যামেরার স্মার্টফোন হবে। এতে ২০০ মেগাপিক্সেলের ক্যামেরা থাকবে। যদিও এখনো পর্যন্ত প্রতিষ্ঠানটির পক্ষ থেকে এ নিয়ে তেমন কিছুই বলা হয়নি।

 

এছাড়াও বিভিন্ন সংবাদ মাধ্যমে বলা হচ্ছে, ফোনটিতে কোরনিং গরিলা গ্লাস ৭ প্রকেটশন থাকবে। এছাড়াও ৬.৯ ইঞ্চির সুপার অ্যামোলেড ফুল টাচ স্ক্রিন ডিসপ্লে থাকছে। সঙ্গে ১৪৪০ বাই ৩২০০ পিক্সেলে ডিসপ্লে রেজুলেশনতো থাকছেই।

 

বলা হচ্ছে, ভিভো ফ্লাইং ড্রোন ফোনে ২০০ মেগাপিক্সেলের ক্যামেরা ছাড়াও ৩২ মেগা পিক্সেলের আলট্রা ওয়াইড লেন্স, ১৬ মেগাপিক্সেলের ওয়াইড সেন্সর ও ৫ মেগাপিক্সেলের ডেপথ সেন্সর দেওয়া হবে। তবে অবাক করার বিষয় হলো এ ফোনে ৬৪ মেগাপিক্সেলের সেলফি ক্যামেরা থাকছে। যা এর আগে ভিভো ফোনের কোনো স্মার্টফোনে দেখা যায়নি।

 

এছাড়াও ৬৯০০ মেগাহার্টজ ব্যাটারি থাকছে। ফোনটি একটি চার্জ দিলে কমপক্ষে ৩৬ ঘণ্টা চলবে। তাছাড়া এতে ৬৫ডব্লিউ কুইক ব্যাটারি চার্জিং প্রযুক্তি ব্যবহার করা হবে। ফলে দ্রুত সময়ের মধ্যে ফোনটি চার্জ হবে। ২৫৬ জিবি ও ৫১২ জিবি স্টোরেজের ফোনটিতে ১২ জিবি র‌্যাম ও অ্যান্ড্রয়েড ১২ দেওয়া হবে। 

Comments: