• ঢাকা
  • শনিবার, ২৫ মে ২০২৪, ১০ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১

Advertise your products here

  1. শিক্ষা

'সরি মা! রাখতে পারলাম না বাড়ি থেকে তোমাকে দিয়ে আসা কথা'


দৈনিক পুনরুত্থান ; প্রকাশিত: বুধবার, ২০ সেপ্টেম্বর, ২০২৩ খ্রিস্টাব্দ, ০২:৪৩ পিএম
সরি_মা!_বাড়ি_থেকে_তোমাকে_দিয়ে_আসা_কথা_রাখতে_পারলাম_না
ফাইল ফুটেজ

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) বিজয় একাত্তর হলের যমুনা ব্লক থেকে নিচে পড়ে এক শিক্ষার্থীর মৃত্যু হয়েছে।  মঙ্গলবার রাত পৌনে ১টার দিকে এ ঘটনা ঘটে।

অসাবধানতাবশত পড়ে গিয়েছেন নাকি আত্মহত্যা করেছেন তা এখনো নিশ্চিত হওয়া যায়নি।এদিকে ফিরোজের কক্ষে তার পড়ার টেবিলের ওপর রাখা একটি প্যাডে ফিরোজের কিছু হতাশার কথা লেখা রয়েছে। 

‘পৃষ্ঠার ওপরে তারিখের জায়গায় লেখা ছিল ১/০৯/২৩। আর এর নিচে লেখা আছে— মানুষ বাঁচে তার সম্মানে। আজ মানুষের সামনে আমার যেহেতু সম্মান নাই। এই পৃথিবীতে বেঁচে থাকার আমার কোনো অধিকার নাই। আমারে মৃত্যুর দায়ভার একান্ত আমার। সরি মা! বাড়ি থেকে তোমাকে দিয়ে আসা কথা রাখতে পারলাম না। আমার জীবন নিয়ে হতাশ।’

এই লেখার নিচে মাঝ বরাবর লেখা— ‘ফিরোজ।’ এর নিচে লেখা হয়েছে ‘রাত: ১১টা ৩।’ পৃষ্ঠার বাকি অর্ধেকে আরও লেখা আছে, ‘আমার ওয়ালেটের কার্ডে কিছু টাকা আছে। বন্ধুদের কাছে অনুরোধ রইল— মায়ের হাতে দিতে। কার্ডের পাসওয়ার্ড 8079, আর ফোনের লক খুলে দিয়ে গেলাম। আমার লাশের পোস্টমর্টেম না করে যেন বাড়িতে পাঠিয়ে দেওয়া হয়।

কোনোরূপ আইনি ঝামেলায় কাউকে যেন জড়ানো না হয়। সবাই বাঁচুক। শুধু শুধু পৃথিবীর অক্সিজেন আর নষ্ট করতে চাই না।’ এই লেখার নিচে আবারও লেখা রয়েছে— ‘ফিরোজ।’

এর নিচে লেখা হয়েছে, ‘রাত ১১টা ৫।’ কাজী ফিরোজ ঢাবির জিয়াউর রহমান হলের ২০৩ নম্বর রুমে থাকতেন। তিনি চাইনিজ  ভাষা ও সংস্কৃতি বিভাগের ২০১৯-২০ সেশনের শিক্ষার্থী। গোপালগঞ্জ জেলায় তার বাড়ি। কাজী ফিরোজের বন্ধুরা জানিয়েছেন, ফিরোজের হাতের লেখার মতোই এই লেখাটা তাদের মনে হচ্ছে। 

 

পুনরুত্থান/সালেম/সাকিব/এসআর 

দৈনিক পুনরুত্থান / নিজস্ব প্রতিবেদক

এ সম্পর্কিত আরও পড়ুন