• ঢাকা
  • শনিবার, ২৫ মে ২০২৪, ১০ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১

Advertise your products here

  1. জাতীয়

দেশের উন্নয়ন ও শান্তির পক্ষে থাকার জন্য শিক্ষকদের প্রতি আহ্বান প্রধানমন্ত্রীর


দৈনিক পুনরুত্থান ; প্রকাশিত: রবিবার, ১৬ জুলাই, ২০২৩ খ্রিস্টাব্দ, ০৬:২২ পিএম
দেশের_উন্নয়ন_ও_শান্তির_পক্ষে_থাকার_জন্য_শিক্ষকদের_প্রতি_আহ্বান_প্রধানমন্ত্রীর
ফাইল ফুটেজ

শান্তি-সমৃদ্ধি, দেশের অগ্রযাত্রা বজায় রাখতেশিক্ষকদের প্রতি আহ্বান মুক্তিযুদ্ধের শক্তির পক্ষে থাকার জন্য জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

তিনি বলেন, টানা ১৪ বছর ধারাবাহিকতার কারণে একটি সরকারের দেশের ব্যাপক উন্নয়ন সাধিত হয়েছে। কেবল সরকারের ধারাবাহিকতার জন্য শিক্ষকদের নানা সুযোগ-সুবিধা, শিক্ষার মান বৃদ্ধি বাড়ানো সম্ভব হয়েছে। প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন রবিবার (১৬ জুলাই) সকালে বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে অধ্যক্ষ সম্মিলন ও বৃত্তি প্রদান অনুষ্ঠানে।

জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয় এ সম্মিলনের আয়োজন করে। প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘সুনির্দিষ্ট সময়ে বাংলাদেশকে উন্নত করতে সক্ষম হয়েছি। জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান রেখে গিয়েছিলেন স্বল্পোন্নত দেশ। ২০২০ সালের জাতির পিতার জন্মশতবার্ষিকী, ২০২১ সালে সুবর্ণজয়ন্তী উদযাপন করেছি। তখনই যখন বাংলাদেশ উন্নয়নশীল দেশের মর্যাদা পায় একখানা গাড়ি। আমরা রক্ষা করি নির্বাচনী ওয়াদা।’

আরও পড়ুন>> পুলিশে বড় রদবদল, ঊর্ধ্বতন ৫১ কর্মকর্তাকে বদলি

শেখ হাসিনা বলেন, ‘দেশের মানুষ শিক্ষিত হোক, এটা বিএনপি-জামায়াত জোটের কখনোই ইচ্ছা ছিল না। মানুষকে পদদলিত করে রাখা, অন্ধকারে রাখা এবং তাদের শোষণ করে রাখাই তাদের লক্ষ্য। নিজেরা অবৈধ সম্পদের মালিক হবে- এটাই বোধহয় তাদের চেষ্টা।’ ২০০১ সাল থেকে ২০০৬ সাল পর্যন্ত দেশে ত্রাসের রাজত্ব চলে জানিয়ে সরকারপ্রধান বলেন, ‘তারপর ভুয়া ভোটার তালিকা দিয়ে নির্বাচনী বৈতরণী পার হওয়ার চেষ্টা।

পাঁচ বার বাংলাদেশ দুর্নীতিতে চ্যাম্পিয়ন। ৫০০ জায়য়গায় বোমা হামলা, গ্রেনেড হামলা। যার ফলে ইমার্জেন্সি ডিক্লেয়ার (জরুরি অবস্থা জারি) হয়। আর সেই ইমার্জেন্সিতে সবার আগে গ্রেফতার করা হলো আমাকে। আজকে সেই দিন। আমি আত্মবিশ্বাস হারাইনি। আমরা সবসময় ন্যায় ও সত্যের জন্য সংগ্রাম করেছি।’ এক-এগারোর সেনাসমর্থিত সরকার আমাকে নির্বাচন থেকে সরে দাঁড়াতে বলেছিল বলে জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

অন্যান্য খবর>> নির্বাচন কমিশন ও সরকারের পতন ঘটিয়ে নিবন্ধন নেব : নুর

তিনি বলেন, ‘আপনি করবেন না ইলেকশন (নির্বাচন)। মর্যাদা দিয়ে রাখা হবে আপনাকে প্রধানমন্ত্রীর। আমি জিজ্ঞেস করলাম- প্রধানমন্ত্রীর মর্যাদা কী? একখানা গাড়ি, এসি রুম? এগুলো আমি চাই তো না।’তিনি বলেন, ‘ আমি তাদের বলেছি এমন নানান প্রলোভনের প্রেক্ষিতে, লাভ নেইআমাকে এসব লোভ দেখিয়ে। এ দেশের রাষ্ট্রপতি ছিলেন আমার বাবা। আমিও ছিলাম প্রধানমন্ত্রী। বাড়ি-গাড়ি, ধন-সম্পদের প্রতি কোনো লোভ নেই আমার। বাংলাদেশের মানুষের ভাগ্য গড়তে আমি এসেছি, গড়ার জন্য নয় নিজের ভাগ্য।’

 

পুনরুত্থান/সালেম/সাকিব/এসআর

দৈনিক পুনরুত্থান / স্টাফ রিপোর্টার

এ সম্পর্কিত আরও পড়ুন