• ঢাকা
  • বৃহস্পতিবার, ১৮ জুলাই ২০২৪, ২ শ্রাবণ ১৪৩১

Advertise your products here

  1. জাতীয়

সায়েন্সল্যাবে শিক্ষার্থীদের ‘বাংলা ব্লকেড’, যানচলাচল বন্ধ


দৈনিক পুনরুত্থান ; প্রকাশিত: সোমবার, ০৮ জুলাই, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, ০৪:২৮ পিএম
সায়েন্সল্যাবে শিক্ষার্থীদের ‘বাংলা ব্লকেড’, যানচলাচল বন্ধ

কোটা বাতিলের একদফা দাবিতে দ্বিতীয় দিনের মতো রাজধানীর সায়েন্সল্যাব মোড় অবরোধ করেছেন শিক্ষার্থীরা। সোমবার (৮ জুলাই) পূর্ব ঘোষণা অনুযায়ী বিকেল ৩টা ৫৫ মিনিটের দিকে ঢাকা কলেজের মূল ফটকের সামনে সাত কলেজের শিক্ষার্থীরা উপস্থিত হন।

এরপর একটি মিছিল নিয়ে সায়েন্সল্যাব মোড়ে এসে অবরোধ করেন তারা। এর ফলে এলিফ্যান্ট রোড, মিরপুর রোড এবং ধানমন্ডি ২ নম্বর সড়কের যানচলাচল বন্ধ হয়ে গেছে।

এসময় শিক্ষার্থীদের ‘চাকরি তার, মেধা যার’, ‘No Quota, No Discrimination’, ‘সংবিধানের মূল কথা, সবার জন্য সমতা’, ‘বঙ্গবন্ধুর বাংলায়, বৈষম্যের ঠাঁই নাই’, ‘সারা বাংলায় খবর দে, কোটা প্রথার কবর দে’, ‘মুক্তিযুদ্ধের হাতিয়ার, গর্জে ওঠো আরেকবার’, ‘জেগেছে রে জেগেছে, ছাত্র সমাজ জেগেছে’, ‘সংগ্রাম না রাজপথ, রাজপথ রাজপথ’, এই বাংলায় হবে না, বৈষম্যের ঠিকানা’, ‘আঠারোর হাতিয়ার, গর্জে ওঠো আরেকবার’, ‘আমার সোনার বাংলায়, বৈষম্যের ঠাঁই নাই’, ‘এসো ভাই এসো বোন, গড়ে তুলি আন্দোলন’ সহ বিভিন্ন ধরনের স্লোগান দিতে শোনা যায়। বৈষম্য বিরোধী ছাত্র আন্দোলন ব্যানারে অবরোধ করা শিক্ষার্থীরা বলেন, এই মুহূর্তে আর অন্য কোনো দাবি নেই। এখন আমাদের এক দফা দাবি।

সেটি হচ্ছে কোটা বাতিল করতে হবে। কোটার মাধ্যমে বিশেষ একটি শ্রেণিকে অতিরিক্ত সুযোগ করে দেওয়া হচ্ছে। সম্প্রতি আমরা দেখেছি বিপিএসসির অধীনে নেওয়া পরীক্ষারও প্রশ্ন ফাঁসের ঘটনা ঘটেছে। এমনটি যদি সত্যি হয়ে থাকে তবে ছাত্রসমাজের আর আশার কোনো জায়গা নেই। সামগ্রিকভাবে একটি সিস্টেম দুর্নীতির সঙ্গে জড়িয়ে পড়লে টেনে তোলা কঠিন। একদিকে প্রশ্ন ফাঁস অন্যদিকে কোটা। তাহলে সাধারণ শিক্ষার্থীদের কোনো জায়গা নেই। সেজন্য এই মুহূর্তে আমাদের এক দফা এক দাবি-কোটা বাতিল করতে হবে।

dhakapost

আন্দোলনে অংশ নেওয়া ঢাকা কলেজের শিক্ষার্থী রাকিব হাসান বলেন, কোটা ব্যবস্থা আপাদমস্তক দুর্নীতিগ্রস্ত একটি ব্যবস্থা। এটি সাময়িক একটি সিদ্ধান্ত ছিল। যা পরবর্তী সময়ে দীর্ঘদিন ধরে অন্যায়ভাবে চলমান ছিল। এর মাধ্যমে অযোগ্য ব্যক্তিরা চাকরির ক্ষেত্রে সুযোগ পেয়েছে। অথচ সব নাগরিকের সমান সুযোগ-সুবিধা সাংবিধানিক অধিকার। সেজন্য আমরা চাই যেকোনো মূল্যে কোটা বাতিল করা হোক। অন্যথায় এই আন্দোলন চলমান থাকবে।

অপরদিকে শিক্ষার্থীদের অবরোধের পর সায়েন্সল্যাব মোড়ে স্থানীয় নিউমার্কেট থানা ও ট্রাফিক বিভাগের পুলিশ কর্মকর্তাদের অবস্থান করতে দেখা গেছে। অবশ্য শুধু সায়েন্সল্যাবই নয়, সরকারি চাকরিতে কোটা বাতিলের দাবিতে আজও ঢাকার বিভিন্ন স্থানে অবরোধ কর্মসূচি পালন করবেন শিক্ষার্থীরা। এর ফলে আজও ঢাকায় রোববারের মতো তীব্র যানজট সৃষ্টি হওয়ার আশঙ্কা রয়েছে।

দৈনিক পুনরুত্থান / নিজস্ব প্রতিবেদক

এ সম্পর্কিত আরও পড়ুন